বিশেষ বিজ্ঞপ্তিঃ
আই নিউজ বাংলায় আপনাকে স্বাগতম। দেশের প্রতিটি জেলা এবং উপজেলায় আমাদের সংবাদ দ্বাতা নিয়োগ চলছে। একজন সংবাদ দাতা হিসেবে যোগদান করার জন্য আজই যোগাযোগ করুন।
সর্বশেষ সংবাদ :
চেতনায় ফুলের নাম ২১ ফুলের নাম ৭১ ফুলের নাম স্বাধীনতা রাজধানী টোকিওতে বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃক যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জাপান শাখা কর্তৃক যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান মাতৃভাষা দিবস পালিত। নোয়াখালীর সেনবাগে গৃহবধূর আত্মহত্যা,শ্বশুর ও শাশুড়ী আটক! সেনবাগে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত শ্রীপুরের লক্ষ মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় দাফন সম্পুর্ণ হলো বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলীর টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল আর নেই মাতৃভাষা হিসেবে বাংলা বিশ্বের পঞ্চম অবস্থানে জাপান আওয়ামী লীগ শাখা কর্তৃক নবনির্বাচিত কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত নোয়াখালীতে অগ্নিকান্ডে তিনটি ঘর ভস্মীভূত,ক্ষতি ১০ লক্ষাধিক!!
চীনে ‘নিউমোনিয়াসদৃশ’ নতুন ভাইরাস : শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সতর্কতা

চীনে ‘নিউমোনিয়াসদৃশ’ নতুন ভাইরাস : শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সতর্কতা

শেয়ার করুন

নিউমোনিয়াসদৃশ’ প্রাণঘাতী নতুন এক ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে চীনে। ইতিমধ্যে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুরে ৩ জন এবং থাইল্যান্ডে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতর বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে ইতিমধ্যে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে চীন ভ্রমণ শেষে আসা দেশি-বিদেশি নাগরিকদের ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত মহাপরিচালক এবং পরিচালক ‘রোগ নিয়ন্ত্রণ’ অধ্যাপক ডা. সানিয়া তাহমিনা গণমাধ্যমকে জানান, যারা চীন থেকে আসছেন- এমন পর্যটকদের হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিশেষ ‘থার্মাল স্ক্যানার’র ভেতর দিয়ে আসতে হবে। তাদের শরীরে জ্বরের অস্তিত্ব পাওয়া গেলে নিরাপত্তামূলক পরীক্ষা করা হবে।  জানা যায়, নতুন এ ভাইরাসটিতে চীনের উহানের একটি মাছবাজার সংশ্লিষ্ট কয়েক ডজন ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছেন। চীনের ওই মাছবাজারটি চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়। ভাইরাসটি করোনাভাইরাস পরিবারের, বলেছেন কর্মকর্তারা। সাধারণ সর্দি কাশি থেকে শুরু করে প্রাণঘাতী সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিনড্রোমও (সার্স) এ পরিবারের ভাইরাসে হয়ে থাকে। 

এর আগে ২০০২-০৩ এর দিকে চীন থেকে উদ্ভূত সার্স ভাইরাসের প্রকোপে বিশ্বজুড়ে সাতশ’র বেশি মানুষ মারা যায়। সে সময় ২৬টি দেশের প্রায় ৮ হাজার লোক প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন।

শেয়ার করুন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © https://inewsbangla.com
Design BY NewsTheme