1. redwanlkm30@gmail.com : NewsBangla :
শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ১০:৪১ অপরাহ্ন

কারখানার বর্জ্যে নদী যেনো অস্তিত্ববিহীন, অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

রিপোর্টারের নাম
  • সময় মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ, ২০২০
  • ১০৩ view

মাহবুবুল আলম, ধামরাই, ঢাকা।।
ধামরাইয়ের শ্রীরামপুর এলাকায় ‘‘গ্রাফিক্স টেক্সটাইলস্”ও ”রেডিসন ক্যাজুয়াল ওয়্যার লিঃ” নামে দুটি পোশাক কারখানার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বললে তারা দাম্ভিক আচরন প্রকাশ করে বলেন আমাদের পরিবেশের ছাড়পএ আছে কত সাংবাদিক এলো আর গেলো আমরা সব ম্যানেজ করেই চলি।
স্থানীয় গৃহীনি মালতি রানী বলেন নদী পানি যখন পরিস্কার ছিল আমরা গোসল করতে পেরেছি কিন্তু কারঁখানর বর্জ্য-বিষাক্ত কেমিক্যাল নদীর পানিকে এমন পরিমাণ দূষিত করেছে এই পানি দিয়ে গোসল বা গৃহস্থালীর কাজ করা সম্ভব নয়। স্থানীয় কৃষকরা বলেন নদীর পানি ধানের জমিতে প্রবেশ করলে যে ধান চাষ করা হয়েছে তা আস্তে আস্তে মারা যায়।

এ বিষয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের জবাবে হতাশ এলাকাবাসী।একই অভিযোগ স্কুল ছাএ অপূর্ব আহমেদ ফেরদৌস বলেন নদীর পাড়ে রাস্তা দিয়ে চলাচল করা মুস্কিল হয়ে দাঁড়িয়েছে নদীর পানির দুর্গন্ধে নিঃশ্বাস নিতে খুব কষ্ট হয়।কারখানা কর্তৃপক্ষ সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে বিষাক্ত কেমিকেল মিশ্রিত পানি ছেড়ে দেওয়ায় নদীর পানি নষ্ট হয়ে হচ্ছে।

বিষয়টি নিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সাথে দেখা করতে গেলে তাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে দেওয়া হয়নি।”ওই এলাকার মাসুদুর রহমানও জাহাঙ্গীর মিয়া জানান, এক সময় খালে প্রচুর মাছ পাওয়া যেত। আশপাশের কয়েকটি গ্রামের মানুষ এখানে মাছ ধরত। কিন্তু কারখানার বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশ্রিত পানির কারণে মাছ দূরের কথা, খালে এখন কোনো জলজ প্রাণীও চোখে পড়ে না।

অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে ওই কারখানার এডমিন ম্যানেজার সাইদ সাহেব বলেন, “কারখানার কেমিকেল মিশ্রিত বর্জ্য ইটিপির মাধ্যমে শোধন করে নির্গত করা হচ্ছে।”তবে সরেজমিনে কারখানার পেছনের অংশে বিরাট একটি অংশে জমিয়ে রাখা দুর্গন্ধযুক্ত কালো পানি দেখা গেছে।

আপনার ফেসবুক আইডিতে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved © https://inewsbangla.com
Theme Customization BY TVSite.Com