মোঃ তহিরুল ইসলাম নিজস্ব প্রতিনিধি::-
চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে আটকের পর বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে জসিম মন্ডল ৩৩ নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ সময় দুই বিজিবি সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন। রোববার ১৯ এপ্রিল দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার নতুনপাড়া সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে।
খবর পেয়ে জীবননগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে জসিমের মরদেহ উদ্ধার করে।ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলার নতুনপাড়া বিজিবি ক্যাম্পের ক্যাম্প কমান্ডার নায়েব সুবেদার হামিদুল ইসলাম বাদী হয়ে জীবননগর থানায় মামলা করেছেন।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে জীবননগর উপজেলার নতুনপাড়া বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা রোববার সন্ধ্যায় নতুনপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল করিম মন্ডলের ছেলে এলাকার চি‎হ্নিত মাদক ব্যবসায়ী জসিম মন্ডলকে ২৩ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করেন। আটক জসিম বিজিবি সদস্যদের জানান- রাত ১২টার দিকে তার সহযোগিরা ভারত থেকে সদরপাড়া সীমান্ত দিয়ে ফেনসিডিলের বড় একটা চালান নিয়ে আসবে।
জসিমের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বিজিবি সদস্যরা রাত ১২টার দিকে সদরপাড়া সীমান্তের ভড়ভড়িয়া আমবাগানে ওঁৎ পেতে থাকেন। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ৮-১০ জনের একটি চোরাকারবারি দল ফেনসিডিল পার করার সময় বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি চালায় এবং দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাদের ওপর হামলা করে।
এ সময় বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে তিন রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে। একপর্যায়ে জসিম মন্ডল পালানোর চেষ্টা করলে চোরাকারবারিদের ছোড়া গুলিতে ঘটনাস্থলেই মারা যান। অন্যরা পালিয়ে যায়।
এ সময় চোরাকারবারিদের হাঁসুয়ার আঘাতে বিজিবির ল্যান্স নায়েক মহিউদ্দীন এবং সিপাহী ডালিম গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে রাত ৩টার দিকে জীবননগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে জসিম মন্ডলের গুলিবিদ্ধ মরদেহসহ ৩০০ বোতল ফেনসিডিল, একটি হাঁসুয়া ও একটি দা উদ্ধার করে।
জীবননগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত ওসি মোঃ সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন নিহত জসিম মন্ডলের নামে জীবননগর থানায় একটি মাদক মামলা রয়েছে। তিনি এলাকার চি‎হ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার মরদেহ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে বিজিবির পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে।

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here