বিশেষ প্রতিনিধিঃ নোয়াখালী জেলার সদর উপজেলার ১নং চরমটুয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। 
গত- ১৫/১০/২০১২ইং লক্ষীপুর গ্রামের মৃতঃ উজি উল্লাহর ছেলের সাথে একই গ্রামের ইসমাইলের মেয়ের সাথে সামাজিক ভাবে বিয়ে হয়।যৌতুকের দাবীতে  বিয়ের পর থেকে স্বামী দেবর ,শাশুড়ী, ও নন্নোসের হাতে একের পর এক নির্যাতনের শিকার হন এই নারী।
গত- ১১/৫/২০২০ইং দুপুর ২টার সময় যৌতুকের টাকা নিয়ে বিরোধে কথাকাটি হওয়ায় সামাজের বহু মানুষের সামনে প্রকাশ্যে ভুক্তভোগী নারীর দেবর শাশুড়ী নন্নোসে দিনে দুপুরে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।
এই ভাবে বহুবার নির্যাতনের শিকার হয়ে এলাকার গন্য মান্য বিচারকদের কাছে বিচার চেয়ে বিচার পায়নি  নির্যাতিত নারী।  এই ভাবে নির্যাতনের শিকার হয়ে থানায় দুইটি মামলাও করা হয়েছিলো। ওই নারীর অভিযোগ আমার দেবর,আবদুল খালেক ও লেদু নামক এই দুইজন এই ভাবে আমাদের এলাকার বেলায়েত নামক নিরিহ মায়ের সন্তানকে টাকা নিয়ে বিরোধ করে পিটিয়ে হত্যা করে এই নিয়ে ওই ছেলের মায়ে মামলা করতে গেলে সন্ত্রাসী দিয়ে তাদের ভয় ভীতি দেখায় পরে কিছু নেতাদের পিছে লক্ষাধিক টাকা দিয়ে হত্যার দামা চাপা দেয় তারা অবশেষে ওই নারীর দাবী ওই সন্ত্রাসী ডাকাতদের নির্যাতনের হাত থেকে বাচতে চাই আমি।

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here